অনুতপ্ত বায়েজিদের পরিবার, ক্ষমা চান প্রধানমন্ত্রীর কাছে

বায়েজিদ ছেলে হিসেবে খুব ভালো। তবে সে যে কাজটা করেছে সেজন্য আমরা অনুতপ্ত। কাজটা সে ভালো করেনি। এজন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাই। এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন পদ্মা সেতুর রেলিং থেকে নাট খুলে সারাদেশে আলোচিত পটুয়াখালীর বায়েজিদ তালহা মৃধার মেজ ভাবি হাদিসা আক্তার।কথা হয় বায়েজিদের ছোট চাচি ফরিদা বেগমের সঙ্গে। তিনিও বলেন, ‘বায়েজিদ ছেলে হিসেবে খুব ভালো। এরপরও সে যে কাজ করেছে সেটা ঠিক করেনি। এজন্য আমরা অনুতপ্ত।’

পটুয়াখালী সদর উপজেলার লাউকাঠি ইউনিয়নের তেলিখালী গ্রামের নির্মাণশ্রমিক মো. আলাউদ্দিন মৃধার ছোট ছেলে মো. বায়েজিদ তালহা মৃধা।বায়েজিদ স্থানীয় গাবুয়া উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক ও পটুয়াখালী সরকারি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। পরে ঢাকা কলেজে ভর্তি হয়ে সেখান থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। বর্তমানে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরিরত।

তবে বায়েজিদ ঢাকায় থাকায় স্থানীয়ভাবে তেমন পরিচিত নন। বিভিন্ন পারিবারিক ও সামাজিক আচার-অনুষ্ঠানে গ্রামের বাড়ি এলেও দু-একদিন থেকে আবার ঢাকায় ফিরে যেতেন।শনিবার (২৫ জুন) বহুল প্রত্যাশিত পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরদিন ভোর ৬টায় যানচলাচলের জন্য খুলে দেওয়া। ওইদিনই পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খুলে টিকটক ভিডিও বানিয়ে আলোচনায় আসেন বায়েজিদ। এর পরপরই প্রকাশ পায় বায়েজিদের পারিবারিক ও রাজনৈতিক পরিচয়।

পটুয়াখালীতে বায়েজিদের তেমন কোনো পরিচিতি না থাকলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার নাম-পরিচয় প্রকাশ পায়। তার সঙ্গে ছাত্রদল ও ছাত্রলীগ নেতাদের একাধিক ছবি ভাইরাল হয়। তবে দলমত নির্বিশেষ সবাই বায়েজিদকে ধিক্কার জানিয়েছেন।পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে সোমবার (২৭ জুন) পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আনন্দ মিছিল-পরবর্তী সমাবেশে বায়েজিদকে ‘জেলার কুলাঙ্গার সন্তান’ আখ্যা দিয়ে তাকে পটুয়াখালীতে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়।

সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, ‘খালেদা জিয়া বলেছিলেন পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব নয় কিন্তু আওয়ামী লীগ সেটি প্রমাণ করেছে। প্রধানমন্ত্রী প্রমাণ করেছেন পদ্মা সেতু নির্মাণ করা সম্ভব। এখন পদ্মা সেতু উদ্বোধন হয়েছে। আমাদের কষ্ট লাগে এই সেতু নিয়ে পটুয়াখালীর একটি কুলাঙ্গার সন্তান বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়ে অপকর্ম (পদ্মা সেতুর নাট খোলা) করেছে। পটুয়াখালীর মানুষ ঘৃণাভরে তাকে প্রত্যাখ্যান করছে।’এদিকে পদ্মা সেতুর রেলিংয়ের নাট খুলে নিয়ে টিকটক ভিডিও আপলোড করা যুবক বায়েজিদের সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।সোমবার (২৭ জুন) শরীয়তপুরের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. সালেহুজ্জামান এ আদেশ দেন।