ঘরে গৃহবধূর লাশ রেখে পলাতক স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের সলিং মোড় এলাকায় রুমা আক্তার (২৪) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃ-ত্যু হয়েছে। এ ঘ-টনার পর বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন স্বামীসহ শ্ব-শুড়বাড়ির লোকজন। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শ্রীপুর উপজেলার মাওনা ইউনিয়নের পাথার পাড়া (সলিং মোড়) এলাকায় এ ঘ-টনা ঘটে। স্বজনদের অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবে রুমাকে হ-ত্যার পর মুখে বিষ ঢেলে দিয়েছে শ্ব-শুর বাড়ির লোকজন।

নিহত রুমা আক্তার (২৪) উপজেলার সিংদিঘী গ্রামের আব্দুর রহমানের মেয়ে। ৯ বছর আগে পারিবারিকভাবে সলিং মোড় এলাকার নজর আলীর ছেলে ইমরুল হাসান আয়নালের (৩৩) সঙ্গে বিয়ে হয় তার। তাদের সংসারে ইফতেখার হাসান রুহান নামে ৭ বছর বয়সের এক সন্তান রয়েছে। স্বজনরা জানান, বিয়ের আগে থেকেই ইমরুল

হাসানের সাথে অন্য একটি মেয়ের সম্পর্ক ছিল। বিয়ের ৩ বছর পর ওই মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করার বিষয়টি জানাজানি হলে ইমরুল-রুমার মধ্যে কলহ তৈরি হয়। তারপরে দুই পরিবারের লোকজন বসলে ইমরুল আর ওই মেয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করবে না মর্মে জানালে আবার সংসার শুরু করেন তারা।

ইমরুল ওই মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক রাখায় মাঝে মধ্যেই তাদের মধ্যে কলহ হতো। সম্প্রতি ৬ এপ্রিল ইমরুলের জন্মদিন উপলক্ষে ওই মেয়ে মুঠোফোনে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠায়। পরে এ বিষয় নিয়ে পুনরায় কলহ তৈরি হয়। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হলে ছেলের সামনেই রুমাকে মারধর করে ইমরুলসহ তার পরিবারের লোকজন। এক পর্যায়ে রুমার মৃ-ত্যু হলে বাড়ির লোকজন তার মুখে বিষ ঢেলে গা ঢাকা দেয়। পরে প্রতিবেশীদের মাধ্যমে সংবাদ পেয়ে রুমার স্বজনরা এসে মরদেহ দেখে পুলিশে সংবাদ দেয়।

এ ঘটনার বিষয়ে শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। স্বজনদের অভিযোগের প্রেক্ষিত্রে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।