জানা গেল মেসিকে আলখাল্লা পরানোর কারণ

গতকাল রাতে চ্যাম্পিয়ন দলের হয়ে শিরোপা হাতে নেওয়ার আগে লিওনেল মেসিকে কালো আলখাল্লা পরিয়ে দিয়েছেন কাতারের আমির তামিম বিন হামাদ। কাতার সংস্কৃতিকে সাধারণত এ পোশাক পরেন মন্ত্রী পর্যায়ের ব্যক্তিরা। বিশ্বকাপ জেতায় মেসিকে সম্মানের প্রতীক হিসেবে এমন পোশাক পরানো হয়েছে। খবর মার্কার। এদিকে কাতারি ভাষায় এ পোশাকের নাম ‘বিস্ত’। দেশটিতে মূলত গুরুত্বপূর্ণ এবং ভিআইপিরা এ পোশাক পরে থাকেন। তবে মেসিকে এমন পোশাক পরানোয় সমালোচনার ঝড়

উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। তবে এ পোশাক নিয়ে বিন্দুমাত্র মাথা ঘামাননি বিশ্বজয়ী চ্যাম্পিয়ন ফুটবলের ম্যাজিকম্যান লিওনেল মেসি। আলখাল্লা পরে কাপ নিয়ে বিজয়োল্লাসে মেতেছেন তিনি।টুইটবার্তায় ইস্তানবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ মারুফ লিখেছেন, ‘কাতারের সংস্কৃতি অনুসারে কাউকে সম্মান ও শ্রদ্ধা করে বিস্ত পরানো হয়। বিশ্বকাপ জেতার কারণে মেসিকে সম্মান করে কাতারের আমির এ পোশাক পরিয়েছেন। পশ্চিমা গণমাধ্যমের উচিত ভিন দেশের সংস্কৃতিকে সম্মান জানানো।’

আরো পড়ুন> গতকাল রাতে চ্যাম্পিয়ন দলের হয়ে শিরোপা হাতে নেওয়ার আগে লিওনেল মেসিকে কালো আলখাল্লা পরিয়ে দিয়েছেন কাতারের আমির তামিম বিন হামাদ। কাতার সংস্কৃতিকে সাধারণত এ পোশাক পরেন মন্ত্রী পর্যায়ের ব্যক্তিরা। বিশ্বকাপ জেতায় মেসিকে সম্মানের প্রতীক হিসেবে এমন পোশাক পরানো হয়েছে। খবর মার্কার।এদিকে কাতারি ভাষায় এ পোশাকের নাম ‘বিস্ত’। দেশটিতে মূলত গুরুত্বপূর্ণ এবং ভিআইপিরা এ পোশাক পরে থাকেন। তবে মেসিকে এমন পোশাক পরানোয় সমালোচনার ঝড়

উঠেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। তবে এ পোশাক নিয়ে বিন্দুমাত্র মাথা ঘামাননি বিশ্বজয়ী চ্যাম্পিয়ন ফুটবলের ম্যাজিকম্যান লিওনেল মেসি। আলখাল্লা পরে কাপ নিয়ে বিজয়োল্লাসে মেতেছেন তিনি।টুইটবার্তায় ইস্তানবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ মারুফ লিখেছেন, ‘কাতারের সংস্কৃতি অনুসারে কাউকে সম্মান ও শ্রদ্ধা করে বিস্ত পরানো হয়। বিশ্বকাপ জেতার কারণে মেসিকে সম্মান করে কাতারের আমির এ পোশাক পরিয়েছেন। পশ্চিমা গণমাধ্যমের উচিত ভিন দেশের সংস্কৃতিকে সম্মান জানানো।’