জেনে নিন খালেদা জিয়ার শারীরিক সবশেষ অবস্থা

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা এখন পর্যায়ক্রমে ভালোর দিকে যাচ্ছে।বুধবার (২১ এপ্রিল) দুপুরে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এ বি এম জাহিদ হোসেন বলেন, ম্যাডামের শ্বাসকষ্ট নেই, গলাব্যথা নেই, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। তার শরীরের তাপমাত্রও ঠিক ছিল।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর আজ খালেদা জিয়ার ১৩তম দিন চলছে। আগামী সপ্তাহে আবারও করোনা পরীক্ষা করার পরিকল্পনা আছে। খালেদা জিয়ার গুলশানের বাসভবন ‘ফিরোজা’ বাকি আটজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাদের অবস্থাও ভালো বলে জানিয়েছেন এই চিকিৎসক।গত ১০ এপ্রিল করোনা পরীক্ষা করান বিএনপি চেয়ারপারসন। পরদিন পরীক্ষায় পজিটিভ শনাক্ত হন তিনি। বেগম জিয়ার পাশাপাশি তার বাসার আরও আটজনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়।

আরও পড়ুনঃএবার করোনা পরিস্থিতির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত সাড়ে দশ লাখ দুস্থ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আর্থিক অনুদান পৌঁছে দেবে বিকাশ।জীবিকার উপায় হারানো দুস্থ পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়াতে প্রধানমন্ত্রীর অনন্য উদ্যোগে গতবছরের মত এবারও ঈদের সময়ে প্রতিটি পরিবারের জন্য ২৫০০ টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেয়া হবে।জাতীয় পরিচয় পত্রের ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তির কাছে স্বচ্ছতা, দ্রুততা ও নিরাপত্তার সাথে ডিজিটাল মাধ্যমে অর্থ বিতরণ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ২৫০০ টাকা করে ৩৪ লাখ ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের কাছে আর্থিক সহায়তা বিতরণ কার্যক্রম পরিচলনা করা হচ্ছে।বিকাশের মাধ্যমে ১০ লাখ ৫০ হাজার দুস্থ পরিবারের কাছে সরকারী এই অর্থ সহায়তা পৌঁছে যাচ্ছে ঈদের আগেই। রমজান ও ঈদের সময় এই অর্থ সাহায্য কিছুটা হলেও স্বস্তি দেবে এবং জরুরী প্রয়োজনে কাজে আসবে।

সরকারী সাহায্যের এই টাকা ক্যাশআউটের ক্ষেত্রে উপকারভোগীর কোন খরচ লাগছে না। মোট ক্যাশআউট খরচের ১৫ টাকা দেবে সরকার, বাকি ৩১ দশমকি ২৫ টাকা বিকাশ বহন করবে এই মহতী উদ্যোগের সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে। সাহায্য পাওয়া পরিবারের সদস্যরা যেন নির্বিঘ্নে এই টাকা ক্যাশআউট করতে পারেন সে ব্যাপারে সমস্ত প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।সরকারের দূরদরর্শী সিদ্ধান্তে ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের কল্যাণে জরুরী এই সময়ে দুস্থ পরিবার গুলোর মাঝে আর্থিক সহায়তা যথাযথ ভাবে বিতরণ করা সম্ভব হচ্ছে। উল্লেখ্য গতবছর প্রায় ১০ লাখ পরিবারের কাছে সফলতার সাথে প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার অর্থ পৌঁছে দেয় বিকাশ।