থানায় নেয়া হয়েছে মামুনুল হকের দ্বিতীয় স্ত্রী ঝর্ণার বাবাকে

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকের কথিত দ্বিতীয় স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা ওলিয়ার রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্থানীয় থানায় নেয়া হয়েছে।শনিবার (২৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টায় তাকে ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানায় নেয়া হয়। জান্নাত আরা ঝর্ণার বাবা ওলিয়ার রহমান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক সেনাসদস্য।

তিনি আলফাডাঙ্গা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৪নং ওয়ার্ডের সভাপতি ছিলেন। তবে সম্প্রতি তাকে বহিষ্কার করা হয়। ঝর্ণার মা শিরিনা বেগম বলেন, রাতে ওসি সাহেব ও পুলিশের লোকজন এসে উনাকে নিয়ে গেছেন। তবে কোনো কারণ জানাননি।

গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোনায়েম খান বলেন, শনিবার রাত সাড়ে ৯টায় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমাকে ফোনে জানান, উনার সঙ্গে ওলিয়ার রহমানের বাড়িতে যেতে হবে।

কিন্তু পরে তিনি আর আমাকে নেননি। গ্রেপ্তার করা হয়েছে কিনা জানি না। তবে থানায় নেয়া হয়েছে শুনেছি। এর থেকে বেশি আর কিছু জানি না। আলফাডাঙ্গা থানার ওসি মো. ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, এমনিতেই তাকে আনা হয়েছে। গ্রেপ্তার বা জিজ্ঞাসাবাদ কিছুই না। ঢাকা থেকে টিম আসবে কথাবার্তার জন্য।

প্রসঙ্গত, গত ২১ এপ্রিল বিকালে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় তাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা মো. মোনায়েম খান কেন দল থেকে ওলিয়ার রহমানকে বহিষ্কার করা হবে না মর্মে জানতে চেয়ে গত ১২ এপ্রিল কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠান।

ওই নোটিশে সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছিল। ১৯ এপ্রিল ওই সাত দিন পার হয়। এই প্রেক্ষাপটে ২১ এপ্রিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের এক নির্বাহী সভায় ওলিয়ারকে দল থেকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।