দিল্লিতে একদিনে রেকর্ড ৩৪৮ জনের মৃত্যু

করোনার প্রকোপে ভারতের রাজধানী দিল্লি যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে। সেখানে প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যু ও শনাক্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে রেকর্ড ৩৪৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ২৪ হাজার ৩৩১ জন। দিল্লিতে করোনা সংক্রমণের হার দাঁড়িয়েছে ৩২ শতাংশে। এ ছাড়া দিল্লিতে বর্তমানে রেকর্ড ৯২ হাজার রোগী রয়েছেন।

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, এর আগে মঙ্গলবার দিল্লিতে ২৮ হাজার ৩৯৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। ওই দিন মৃত্যু হয় ২৪০ জনের। পরদিন বুধবার মৃত্যু হয় ২৪৯ জনের এবং বৃহস্পতিবার ৩০৬ জনের। আর সর্বশেষ শুক্রবার সেখানে রেকর্ড ৩৪৮ জনের মৃত্যু হয়।

এ অবস্থায় দিল্লির হাসপাতলগুলোতে সাধারণ-আইসিইউ বেডসহ অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। হাসপাতালগুলো বলছে, দ্রুত অক্সিজেনের সংগ্রহ বাড়ানো না গেলে রোগীদের জীবন তীব্র সংকটে পড়বে। হাসপাতালে বেড, অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং ওষুধ চেয়ে রোগীর স্বজনদের আহাজাড়িতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছেয়ে গেছে।

এদিকে, মৃত্যু বাড়তে থাকায় মরদেহ শেষকৃত্যের জন্য জায়গা হচ্ছে না দিল্লির শ্মশানগুলোতে। শুধু শ্মশানই নয়, কবরস্থানগুলোর অবস্থাও একই রকম। মরদেহ সমাহিত করার জায়গা পেতে হিমশিম খাচ্ছে করোনায় মৃতের পরিবারগুলো।

দিল্লিতে পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, শ্মশানের বাইরে লাইনেও জায়গা পাচ্ছেন না অনেকে। বাধ্য হয়ে বাড়িতেই প্রিয়জনের মরদেহ রেখে দিতে হচ্ছে।