ভারতে ভয়াবহ হচ্ছে করোনা পরিস্থিতি, এক মাসে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড ছাড়ালো ২৬ দিনে

করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে পর্যুদস্ত প্রতিবেশী দেশ ভারত। মহামারি করোনাভাইরাসে গেল ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ২ হাজার ৭৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে দিয়ে চলতি মাসে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩৪ হাজার ৫৯৫ জন ছাড়িয়েছে। আর তাতে এক মাসে ভারতে সর্বোচ্চ মৃত্যুর আগের যে রেকর্ড ছিল সেটা ভেঙে গেছে মাত্র ২৬ দিনে।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে তিন লাখ ১৯ হাজার ৪৩৫ জন ভারতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে এক কোটি ৭৬ লাখ ২৫ হাজার ৭৩৫ জন এবং মারা গেছে এক লাখ ৯৭ হাজার ৮৮০ জন। দেশটিতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছে এক কোটি ৪৫ লাখ ৪৫ হাজার ৩৪২ জন এবং বর্তমানে আক্রান্ত অবস্থায় রয়েছে ২৮ লাখ ৮২ হাজার ৫১৩ জন। ভারতে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হওয়ার হার ৯৯ শতাংশ এবং মারা যাওয়ার হার এক শতাংশ।

সে দেশে বর্তমানে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় রয়েছে আট হাজার ৯৪৪ জন এবং বাকিদের অবস্থা স্থিতিশীল। করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের সংখ্যা ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেশি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে।

তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২৮ লাখ ৭৫ হাজার ৪৫ জন আর ৫ লাখ ৮৬ হাজার ৬১১ জন মারা গেছেন। করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ১ কোটি ৭৬ লাখ ২৫ হাজার ৭৩৫ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮০ জন।

লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগী ১ কোটি ৪৩ লাখ ৭০ হাজার ৪৫৬ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৯২ হাজার ২০৪ জনের। দেশে করোনাভাইরাসের আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১১ হাজার ১০৫ জনে।

এছাড়াও এখন পর্যন্ত দেশে মোট শনাক্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৪৮ হাজার ৬২৮ জন। এদিকে আক্রান্তের তালিকায় তুরস্ক ষষ্ঠ, যুক্তরাজ্য সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। গত বছরের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।