মুনিয়ার মৃত্যু: অডিও ক্লিপ ভাইরাল

রাজধানীর গু-লশানে ফ্ল্যা-ট থেকে ত-রুণীর ঝুল-ন্ত ম-রদেহ উ-দ্ধা-রের ঘ-টনায় বেরিয়ে আসছে নতুন সব তথ্য। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি অডিও ক্লি-প ভা-ইরাল হয়েছে যেখানে একজন ব্য-ক্তি এবং এক নারীর কথোপকথন শোনা যায়। বিভিন্ন গণমা-ধ্যমে দাবি করা হয়, এই অডিও ক্লি-পটি মামলায় আসামি করা ‘শি-ল্পপতি’ এবং গলায় ফাঁ-স নিয়ে ‘আ-ত্মহ-ত্যা’ করা মোসারাত জাহান মুনিয়ার।

অডিও ক্লি-পে ওই ব্য-ক্তিকে বলতে শোনা যায়, আমার টাকাটা দিয়া দিস, তুইই আমার টাকা নিছস। তরুণী বলেন, আল্লাহরে ভয় পান না আপনি? আপনাকে কে বলছে আমি ৫০ লাখ টাকা নিছি, আমি কোনো টাকা নেই নাই।

উত্তরে অন্যপাশ থেকে ওই ত-রুণীকে বারংবার অক-থ্য ভাষায় গালাগালি করা হয়। যদিও অ-ডিওক্লি-পটিতে কথা বলা দুইজনের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে অডিও-ক্লি-পটি ইতোমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকহারে ভাইরাল হয়েছে।

রাজধানীর গু-লশানে-র একটি -ফ্ল্যাট থেকে সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় গলায় ও-ড়না প্যাচানো অব-স্থায় ম-রদেহটি উ-দ্ধার করা হয়। এ ঘ-টনায় গু-ল-শান থানায় একটি হ-ত্যা মামলা দায়ের করেছে কলেজছাত্রী মুনিয়ার পরিবার।

জানা যায়, মোসারাত জাহান মুনিয়া নামের ওই ত-রুণীর পরিবার কুমিল্লা-য় থাকত। তবে তিনি থাকতেন ঢাকায়। উচ্চ মাধ্যমিকে পড়াশোনা করতেন ঢাকার একটি কলেজে।পুলি-শের গু-লশান বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সুদীপ কু-মার চক্রব-র্তী জানান, বাসাটির বাড়িওয়ালার কাছ থেকে পাওয়া চু-ক্তি-পত্র অনুযায়ী ফ্ল্যা-টটি মার্চ মাসের ১ তারিখে ভাড়া নেন মুনিয়া। তিনি আরও জানান, চু-ক্তিপত্র অনুযায়ী অগ্রিম ২ লাখ টাকা দিয়ে প্রতি মাসে ১ লাখ টাকা ভাড়ার বিনিময়ে ওই বাসায় একাই থাকতেন কলেজছাত্রী।