মেসিকে নিয়ে নেইমারের পোস্ট; লাইক দেননি এমবাপ্পে

কাতার বিশ্বকাপের ফাইনালে টাইব্রেকারে ফ্রান্সকে হারিয়ে অবশেষে কাপ ঘরে তুললেন ফুটবলের ম্যাজিকম্যান লিওনেল মেসি। কাপ জিতে বিশ্বজুড়ে প্রশংসায় ভাসছেন এ তারকা। তাকে অভিনন্দন জানিয়ে ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার নেইমার জুনিয়র। তবে নেইমারের সেই পোস্টে লাইক দেননি ফ্রান্সের ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পে। খবর মার্কার।

কোয়ার্টার ফাইনালে ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে হেরে ব্রাজিলে ফিরে গেছেন নেইমার। বাড়িতে বসেই দেখেছেন ফ্রান্স বনাম আর্জেন্টিনার ফাইনাল ম্যাচ। খেলা শেষে পিএসজির টিমমেট মেসিকে অভিনন্দন জানাতে একটুও দ্বিধাবোধ করেননি তিনি। ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘অভিনন্দন ভাই’। তবে নেইমারের এ পোস্টে লাইক দেনদি ফাইনালে রানার্সআপ হওয়া ফ্রান্সের ১০ নম্বর জার্সির দুর্দান্ত ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পে। প্রসঙ্গত,

ফাইনালে হ্যাটট্রিক করে এবারের বিশ্বকাপের গোল্ডেন বুটের পুরস্কারটি হাতিয়ে নিয়েছেন এমবাপ্পে। পুরস্কার নেওয়ার সময় চেহারা বেশ মলিন দেখা যায় এ ফুটবলারের। এর আগে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপে শিরোপা জিতেছেন এমবাপ্পের দল। তবে এবার ফাইনালে বিদায় নিতে হলো ফ্রান্সকে।

আরো পড়ুন> রোমাঞ্চকর ফাইনালে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে টাইব্রেকারে ফ্রান্সকে হারিয়ে তৃতীয়বার বিশ্বকাপ জিতল আর্জেন্টিনা। দীর্ঘ ৩৬ বছর পর লিওনেল মেসির হাত ধরে শিরোপা ঘরে তুলল আর্জেন্টাইনরা। এর আগে ১৯৮৬ সালে দিয়াগো ম্যারাডোনার নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জিতেছিল আর্জেন্টিনা। সেই বিশ্বকাপে ম্যারাডোনার সতীর্থ ছিলেন হোর্হে বুরুচাগা, অস্কার রুগেরি, সের্হিও বাতিস্তা, হোর্হে ভালদানো ও নেরি পম্পিডুরা।

সেই বিশ্বকাপের পর ম্যারাডোনার সঙ্গে আরেকটি বিশ্বকাপ জয়ের চেষ্টা চালিয়ে গেছেন ক্লদিও ক্যানিজিয়া, সের্হিও গয়কোচিয়া, গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা ও দিয়াগো সিমেওনেরা।কিন্তু ম্যারাডোনার কীর্তির আর পুনরাবৃত্তি হয়নি। ১৯৮৬ মেক্সিকো বিশ্বকাপের পর কেটে গেছে ৩৬ বছর। দীর্ঘদিন চেষ্টার পর রোববার কাতারে ফ্রান্সকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ফের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয় আর্জেন্টিনা।

ফ্রান্সকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর আনন্দের কান্নায় চোখ ভাসান আর্জেন্টিনার হয়ে তিনটি বিশ্বকাপে ৯ গোল করা গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতা। ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে কেঁদে বাতিস্তুতা বলেন, ‘দুর্দান্ত এই জয়। আমরা সবাই কত কষ্টই না করেছি এই জয় দেখার জন্য। আমি মেসির জন্য আনন্দিত। গোটা দেশের জন্যই আনন্দিত। আমি কথা বলতে পারছি না। দুঃখিত, আমি কথা বলতে পারছি না। সবার কাছে ক্ষমা চাই।’