যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পেয়েছেন অপু, যাতায়াত বেড়েছে শাকিব খানের বাসায়

ঢালিউডের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খানের সংসারে চলছে ডায়মন্ডের নাকফুল কাণ্ড। এরই মধ্যে জানা গেল তাঁর সাবেক স্ত্রী অপু বিশ্বাস ও সন্তান আব্রাম খান জয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা পেয়েছেন। যেখানে সম্প্রতি স্থায়ী আবাসনের প্রাথমিক অনুমতি পেয়েছেন শাকিব।গেল ২৯ অক্টোবর অপু-জয় এই ভিসা হাতে পেয়েছেন বলে এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছে অপু বিশ্বাসের একাধিক ঘনিষ্ট সূত্র।এদিকে, বুবলীকে জন্মদিনে উপহার দেওয়া নিয়ে শাকিব খানের সাবেক ও ‘বর্তমান’ দুই স্ত্রীর খোঁচাখুঁচি চলছিল। সেই ইস্যু মুখ খুলেছেন শাকিব খান। জানিয়ে দিয়েছেন, বুবলীকে তিনি কোন উপহার দেননি। শুধু তাই নয়, বুবলীর সঙ্গে কোন সম্পর্ক নেই; যেটা আগে থেকে বলে আসছিলেন নায়ক।

এই ইস্যুতে বুবলী অপু বিশ্বাসের নাম উল্লেখ না করে বলছেন, তৃতীয় একজনের কারণে এসব বলছেন শাকিব খান। এই বিষয়ে তিনি দ্রুতই সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবেন। এছাড়াও বুবলী এখন অভিযোগ করছেন, ‘শাকিব খান আমাকে যখন বিয়ে করেছিল অনেক কিছু গোপন করেছিল। আমাকে আগের বিয়ের (অপু বিশ্বাসের সঙ্গে) মিথ্যা কথা বলে বিয়েও করেছেন।’শাকিব খানের গুলশানের বাড়িতে নিয়মিত যাতায়াত আছে এমন একাধিক সূত্রও এনটিভি অনলাইনের কাছে দাবি করেছে, যুক্তরাষ্ট্র থেকে

ফেরার পর শাকিবের বাড়িতে যাতায়াত বেড়েছে অপু বিশ্বাসের। যেমনটা আগে ছিল না। বুবলীর এমন অভিযোগের পর নেটিজনদের একাংশের মনে প্রশ্ন, তাহলে কি ফের অপু বিশ্বাসের কাছে ফিরছেন ঢালিউড খান? তবে এই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন শাকিব খান তবে স্বীকার করেছেন অপু বিশ্বাসের তাঁর বাসায় যাতায়াত বাড়ার বিষয়টি।এই ইস্যুতে গণমাধ্যমকে শাকিব খান বলেছেন, ‘আব্রাম খান জয়ের বাবা যেমন আমি শাকিব খান, তেমনি মা হচ্ছেন অপু বিশ্বাস। বাবা হিসেবে সন্তানের সঙ্গে আমার দেখা

হয়। জয় মাঝেমধ্যে আমার সঙ্গে থাকে। ওর দাদা-দাদির সঙ্গে থাকে। জয় যেহেতু ছোট, একা আসতে পারে না, তাই জয়কে আনার সুবাদে তার মা আসে। কিন্তু আমাদের মধ্যে সন্তানের বিষয়ের বাইরে আর কোনো কথা হয় না। জয়ের স্কুলেও যাওয়া হয় মাঝেমধ্যে, সেখানেও দেখা হয় আমাদের।’শাকিব খান সাবেক স্ত্রী অপু বিশ্বাস সন্তানের

খবর প্রকাশ্যে নিয়ে আসায় ২০১৭ সালের ২২ নভেম্বর বিচ্ছেদের জন্য আবেদন করেন। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি এই দম্পতির বিচ্ছেদ হয়।এরপর ২০১৮ সালের ২০ জুলাই বিয়ে করেন আরেক চিত্রনায়িকা শবনম বুবলীকে। গুঞ্জন ছিল, বুবলীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক থাকায় শাকিবের ঘরে নিজের সন্তান থাকার সংবাদ প্রকাশ্যে আনেন অপু। সেই হিসাবে অপুকে ডিভোর্সের ১৪৮ দিন পর বুবলীকে বিয়ে করেন শাকিব। আর সেই খবর বুবলী প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন ১৫৩৬ দিন পর।