সুখবর পেলেন খালেদা জিয়া

প্রায় একমাস পর সুখবর পেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি করোনামুক্ত হয়েছেন। তৃতীয়বার করোনা পরীক্ষা করে বৃহস্পতিবার সকালে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। বিএনপি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পর্যবেক্ষণ করছে তার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ড। বৃহস্পতিবার দুপুরে বোর্ড বৈঠকে বসে। বোর্ডের সঙ্গে কথা বলতে এভারকেয়ার হাসপাতালে গেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

গত ১০ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হয়। এরপর থেকে গুলশানের বাসা ‘ফিরোজায়’ তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক এফএম সিদ্দিকীর নেতৃত্বে চিকিৎসা শুরু হয়। ১৪ দিন অতিক্রান্ত হওয়ার পর দ্বিতীয়বারের মতো খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট হলেও ফল পজিটিভ আসে।

এরপর ২৭ এপ্রিল রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়ায় তাকে সিসিইউতে রাখা হয়।পরে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য অধ্যাপক ডা. শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে ১০ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

তারা জানান, খালেদা জিয়ার শরীরে করোনার কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। চিকিৎসকরা তাকে বিদেশ নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। খালেদা জিয়ার ভাই তাকে বিদেশ নিয়ে চিকিৎসা করাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে আবেদন করেছেন। সেই প্রক্রিয়া এখন চলছে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের করোনামুক্ত হওয়ার বিষয়ে জানতে তার চিকিৎসক টিমের সদস্য ও দলের ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জেড এম জাহিদ হোসেনের মুঠোফোনে কল করে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।