সেজদারত অবস্থায় আড়াই লাখ টাকা চুরি, আটক দুই চোর

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড শরীয়তপুর শাখার ভেতর থেকে গ্রাহকের নগত দুই লাখ ৬০ হাজার ৮০০ টাকা চুরির অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় দুজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা। আজ রোববার দুপুর দেড়টার দিকে শরীয়তপুর সদর উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ের পশ্চিম পাশের দুবাই প্লাজার দ্বিতীয় তলা ইসলামী ব্যাংকের নামাজের স্থান থেকে ওই টাকা চুরি হয়। ভুক্তভোগী ওই গ্রাহকের নাম আব্দুল মোমিন তালুকদার। তিনি শরীয়তপুর আদালতের পশ্চিম পাশের বাজারের একজন

মোবাইল ব্যবসায়ী।ভুক্তভোগী গ্রাহক জানান, ‘আমি মোবাইলের ব্যবসা করি। আজ মোবাইল বিক্রির দুই লাখ ৬০ হাজার ৮০০ টাকা ইসলামী ব্যাংকে জমা দিতে যাই। তখন জোহর নামাজের সময় হয়ে যায়। তাই ব্যাংকের ভেতর নামাজের স্থানে আমার টাকার ব্যাগটি সামনে রেখে নামাজে দাঁড়াই। এক সেজদা দেওয়ার পর খেয়াল করি টাকার

ব্যাগটি নেই।’ তিনি বলেন, নামাজ ছেড়ে দ্রুতগতিতে নিচতলায় এসে ‘চোর’, ‘চোর’ বলে চিৎকার করলে স্থানীয়রা অপরিচিত দুজনকে দৌড়াতে দেখেন। পরে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা ও স্থানীয়রা মিলে তাদের আটক করেন। পরে আমি টাকাগুলো ব্যাংকে জমা করি।স্থানীয় ব্যাবসায়ীরা জানান, ‘দুবাই প্লাজার দোতলায় ইসলামী ব্যাংক। ব্যাংকের ভেতর এক গ্রাহকের টাকা চুরি হয়ে যায়। পরে টাকার ব্যাগসহ দুই চোরকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপক আ.

গাফ্ফার মিয়া বলেন, বিষয়টি শুনেছি। তবে এখানে ব্যাংকের কোনো বিষয় নেই। এরপরও যেহেতু ঘটনাটি ঘটেছে, তাই পুলিশ সহায়তা চাইলে সিসি টিভির ফুটেজ দেওয়া হবে। শরীয়তপুর সদর পালং মডেল থানার ওসি মো. আক্তার হোসেন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। ব্যাংক ও এর আশপাশ থেকে সিসি টিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হবে। তবে ভুক্তভোগী মমিন এখনো অভিযোগ করেননি। তিনি অভিযোগ না করলেও আটকদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।