স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ভাড়া বাসা নিয়ে চলছিল দে’হব্যব’সা, ধ’রলো এলাকাবাসী

লাকসাম পৌরশহরে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ভাড়া বাসা নিয়ে চলছে দে’হব্য’বসা’। এ ঘটনায় খ’দ্দে’রসহ ৪ জনকে আট’ক করেছে লাকসাম থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার (১৯ এপ্রিল) বিকালে পৌরসভার দরগাহ রোড

পশ্চিমগাও এলাকায়। এ ঘটনায় নিয়ে এলাকায় তো’লপা’ড় সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি আবু সায়েদ বাচ্চু থানায় ফোন করলে পুলিশ ঘটনার স্হলে এসে “মজুমদার ভিলা” নিচতলায় ত’ল্লা’শি করে। এ সময় ভাড়াটিয়া স্বামী-স্ত্রী, দে’হব্য’বসা’য়ী তরুণী ও একজন খ’দ্দে’রসহ ৪ আট’ক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, পৌরশহরে পশ্চিমগাও দরগাহ রোড হোল্ডিং নং ১৫৮ বাসা নং ৩ সি, আলহাজ্ব হাবিবুল হক “মজুমদার ভিলা” গত কয়েক মাস ধরে নিচতলায় বাসাভাড়া নিয়ে থাকেন মহিন উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি ও তার স্ত্রী।

ভাড়াটিয়া মহিন উদ্দিন তার বাসায় অনেকদিন হতে পরিচিত ও অপ’রিচিত অনেক লোক ও পুরুষ-মহিলারা যাতায়াত করতো। এলাকাবাসী প্রথমে সে রকম কিছু মনে করিনি, ধীরে ধীরে তাদের ওই বাসায় স’ন্দে’হ হয়। সোমবার বিকালে তাদের বাসায় অপরিচিত দুইজন পুরুষ প্রবেশ করে অ’সা’মাজিক কা’র্যকলা’পে লি’প্ত হয়। তাদের বাসায় দে’হব্য’বসা চলতে দেখে স্থানীয় এলাকাবাসী তাদেরকে হা’তে না’তে ধরে পুলিশ খবর দেয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক বা’সিন্দা বলেন, একশ্রেণীর দা’লা’ল প’তি’তাদের চু’ক্তি করে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, নরসিংদী, বরিশাল, সিলেটসহ দেশের বড় বড় শহর থেকে বাসা বাড়িতে নিয়ে আসে। আবার ভা’ড়া’টিয়া দা’লালদের

সঙ্গে চু’ক্তি করে কতজন নারী প’তি’তার চাহিদা রয়েছে। অনেক দা’লাল নিজেরাই লাকসাম শহরে অনেক বাসা ভাড়া করে ‘দে’হ ব্যব’সা চালিয়ে যাচ্ছে। রাখছেন অনেক সুন্দরী তরুণী।

স্থানীয় কাউন্সিল আবু সায়েদ বাচ্চু বলেন, ভা’ই’রা’সের কারণে সারাদেশে বর্তমানে ল’কডা’উন চলছে। দেশের মানুষ আত’ঙ্কে বসবাস করছে আর কিছু মানুষ পাপ কাজ করে আমাদের সমাজটাকে পা’পি বানাইছে। সমাজের ছেলে মেয়েদের ন’ষ্ট করছে তারা, আমরা এর কঠিন থেকে কঠিন বি’চারের দাবি জানাচ্ছি।এ ঘটনায় সোমবার রাতে লাকসাম থানার উপপরিদর্শক মনোজ কান্তি কুরি বলেন, এলাকাবাসীর সহোযোগিতায় ওই বাসায় থেকে একজন দে’হ ব্য’বসা’য়ী তরুণী, ভাড়াটিয়া মহিন উদ্দিন ও তার স্ত্রী এবং একজন পুরুষকে আ’টক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মাম’লা চলমান রয়েছে।